মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সাধারণ দায়িত্বাবলী

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের ক্ষমতা ও দায়িত্বঃ

উপজেলা নির্বাহী অফিসার উপজেলা পর্যায়ে সাধারন প্রশাসন, রাজস্ব প্রশাসন, ফৌজদারী বিচার  প্রশাসন ও উন্নয়ন  প্রশাসন সংক্রান্ত নিম্নোক্ত দায়িত্ব পালন করে থাকেনঃ 

 

০১।     উপজেলা পর্যায়ে  উন্নয়ন  প্রশাসনিক কার্য সম্পাদন।

০২।     একটি সমন্বিত উন্নয়ন  কর্মসূচী প্রনয়ন এবং বাস্তবায়ন।

০৩।     প্রাকৃতিক দূর্যোগকালে খাদ্য ও রিলিফ সামগ্রী গ্রহণ ও মজুদকরণসহ সার্বিক দায়িত্ব পালন।

০৪।     উপজেলা প্রশাসন সংক্রামত্ম বিষয়ে সরকারী নির্দেশ পালিত হচ্ছেন কিনা, তা তিনি নিশ্চিত করবেন।

০৫।     উপজেলায় তাঁর বিভাগের সকল প্রশিক্ষণের ব্যাপারে দায়ী থাকবেন এবং উপজেলা পর্যায়ে সকল প্রশিক্ষন কার্যক্রমের সমন্বয় সাধন করবেন।

০৬।     তিনি তাঁর কার্যালয়ে কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারীগনের ক্ষেত্রে আয়ন-ব্যয়ন কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

০৭।     তিনি তাঁর অধীনে কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কাজকর্ম তদারক করবেন।

০৮।     তিনি সরকার কিংবা যে কোন আইন বলে সরকার কর্তৃক প্রদত্ত কাজ সম্পাদন করবেন।

০৯।     তিনি আবশ্যিক  কর্তব্য হিসেবে তাঁর এলাকাধীন  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ পরিদর্শন করবেন।

১০।     প্রটোকল দায়িত্ব পালন করবেন।

১১।      উপজেলায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের সকল দায়িত্ব পালন করবেন।

১২।     উপজেলা রাজস্ব ও বাজেট সম্পৃক্ত কার্যক্রমের তত্বাবধান ও নিয়ন্ত্রন করবেন।

১৩।     উপজেলা আইন-শৃংখলা কমিটির প্রধান হিসেবে কার্য সম্পাদন করবেন। তিনি আইন-শৃংখলা রক্ষার ক্ষেত্রে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে প্রয়োজনীয় আদেশ দিবেন।

১৪।     তিনি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসাবে দন্ডবিধি ও অন্যান্য আইনে দন্ডনীয় অপরাধের ক্ষেত্রে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা ও সংক্ষিপ্ত পদ্ধতিতে বিচার সম্পন্ন করবেন।

১৫।     উপজেলার কোন স্থানে দাংগা বা বেআইনী  সমাবেশ বা আইন-শৃংখলার অবনতি হতে পারে এরূপ পরিস্থিতিতে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ফৌজদারী কার্য বিধির ১৪৪ ধারা জারী করবেন।

১৬।     ইউনিয়ন পরিষদ এবং জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচন সংক্রান্ত দায়িত্ব পালন করবেন।

১৭।     উপজেলায় অনুষ্ঠিত বোর্ড/বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষাসমূহের কেন্দ্রের শান্তি-শৃংখলা বজায় রাখার দায়িত্ব পালন করবেন।

১৮।     উপজেলা রাজস্ব সভায় সভাপতিত্ব করবেন। উপজেলায় পর্যায়ে ভূমি  ব্যবস্থাপনা করবেন।

১৯।     কালেক্টর এর প্রতিনিধি হিসেবে তিনি উপজেলা পর্যায়ে অর্পিত সম্পত্তি ব্যবস্থাপনা করবেন।

২০।     সরকারি সম্পত্তি থেকে অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ এর পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।

২১।     প্রয়োজনে সরকারী অস্থায়ী সম্পদ বিক্রয় পদক্ষেপ গ্রহন করবেন।

২২।     কালেক্টর এর প্রতিনিধি হিসেবে তিনি ১৯১৩ খ্রিস্টাব্দের সরকারী পাওনা আদায় আইনের অধীনে ১০,০০০/- টাকার উর্ধ্বে সরকারি পাওনাসমূহ আদায়ের নিমিত্ত সার্টিফিকেট মামলা রুজু ও নিষ্পিত্তি করবেন।

২৩।     তিনি সরকারি প্রতিনিধি হিসেবে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের হিসাব ও গৃহীত কার্যকর্ম পরিদর্শন করবেন এবং তা স্থানীয় সরকার বিভাগকে অবহিত করবেন। (বর্তমানে স্থগিত আছে।)

২৪।     স্থানীয় সরকার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অধ্যাদেশ অনুযায়ী কোন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব তার কার্যালয়ে দাখিল হলে তিনি বিধি মোতাবেক চেয়ারম্যানকে কারণ দর্শাতে বলবেন। তদন্তকারী অফিসার নিয়োগ করবেন। তদন্তকারী অফিসারকে অনাস্থা প্রস্তাবের উপর সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য পরিষদ সদস্য ও চেয়ারম্যানসহ বিশেষ সভা ডাকার নির্দেশ দিবেন। তদন্তকারী অফিসার এর রিপোর্ট পাবার পর তাঁর মতামতসহ তিনি স্থানীয় সরকার বিভাগে প্রেরণ করবেন।

২৫।     ইউনিয়ন পরিষদের কোন সদস্য অর্থ বা সম্পদ আত্মসাৎ করেছে এরূপ নিশ্চিত হলে তিনি সরকারের প্রতিনিধি হিসাবে ঐ সদস্যের বিরুদ্ধে তদন্ত অনুষ্ঠান এবং প্রয়োজনে মোকদ্দমা দায়ের করতে পারবেন।

২৬।     তিনি উপজেলা সেচ কমিটি, ঋণ কমিটি এবং টেন্ডার কমিটিসহ মোট ৪৯ কমিটির সভাপতি হিসাবে ন্যস্ত সমন্বয়মূলক দায়িত্ব পালন করবেন।

২৭।     তিনি উপজেলা পর্যায়ের সকল উন্নয়ন কার্যক্রমের সমন্বয় সাধন করবেন এবং

২৮।     সরকার কর্তৃক প্রদেয় যে কোন কাজ।

ছবি


সংযুক্তি